জাতীয়

শত ব্যস্ততার মাঝে এক টুকরো অবসরে

বাংলাদেশ সরকারের প্রধান তিনি। ১৭ কোটি মানুষের এ দেশের সরকার পরিচালনার গুরুদায়িত্ব তার কাঁধেই। এই দায়িত্ব পালনে তাকে শত ব্যস্ততায় ডুবে থাকতে হয়। এর ফাঁকেই এক টুকরো অবসর খুঁজে বের করেন তিনি। সেই অবসরে তিনি হয়ে ওঠেন একেবারে সাধারণ বাঙালি নারী। এই সাধারণ অবসরযাপনই তাকে করে তোলে অসাধারণ।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এমন সাধারণ অবসরযাপনের দুটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়েছে শনিবার (২১ নভেম্বর) বিকেলে। একটি ছবিতে দেখা যায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার সরকারি বাসভবন গণভবনের লেকে বড়শি দিয়ে মাছ ধরছেন। আরেকটি ছবিতে দেখা যায়, সাধারণ বাঙালি নারীর মতোই তিনি সেলাই মেশিনে কাপড় সেলাই করছেন।

এই দুই ছবিতে মুগ্ধতা প্রকাশ করছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ব্যবহারকারীরা।

বড়শি দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর মাছ ধরার ছবিটি নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে পোস্ট করে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম লিখেছেন, ‘ক্যাপশন দেবার মতো বিদ্যা আমার নাই।’

প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজ থেকে ছবি দুটি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একজন পরিপূর্ণ মানুষ। তিনি সাফল্যের সাথে ১৭ কোটি বাংলাদেশির ভাগ্য পরিবর্তিত করেছেন। দশ লক্ষ রোহিঙ্গা মুসলমানকে আশ্রয় দিয়েছেন। কিন্তু এখনো রান্না, মাছ ধরা এবং সেলাই উপভোগ করার জন্য সময় খুঁজে পান।’

ছবি দুটি নিজ ফেসবুক পেজ থেকে পোস্ট দিয়ে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক লিখেছেন, ‘সাধারণ বাঙালি নারী আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা। নানা ব্যস্ততার মাঝে তিনি অবসর পেলেই সেলাই করেন কাপড় আর মাছ ধরতে যান গণভবনের পুকুরে। সব হারিয়ে দেশের জন্য সারাদিন কাজ করে যাওয়া এই অনন্য সাধারণ মানুষটির জন্য অনেক ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা।’

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল লিখেছেন, ‘সাধারণে অসাধারণ, সত্যি তিনিই আমাদের মানবতার মা।’

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button